হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে ডিপজল চেম্বার আদালতে

Total Views : 158
Zoom In Zoom Out Read Later Print

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী ঘোষণার ফল স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত চেয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতে এই আবেদন করা হয়েছে। রোববার এই আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী নাসরিন আক্তার নিপুণের আনা রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ ডিপজলকে বিজয়ী ঘোষণার ফলাফল গত ২০ মে স্থগিত করে আদেশ দেয়। সেই সাথে নির্বাচনে অনিয়মের ঘটনা তদন্তের পাশাপাশি রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

গত ১৯ এপ্রিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে নিপুণ ও মাহমুদ কলি প্যানেলের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে মিশা-ডিপজল প্যানেল। ভোট গ্রহণ শেষে ২০ এপ্রিল সকালে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত ফলাফলে সভাপতি পদে মিশা সওদাগর ২৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। আর ১৭০ ভোট পান তার প্রতিদ্বন্দ্বী সভাপতি প্রার্থী মাহমুদ কলি। অন্যদিকে মাত্র ১৬ ভোটের ব্যবধানে সাধারণ সম্পাদক পদে মনোয়ার হোসেন ডিপজলের কাছে হেরে যান নিপুণ। যেখানে ডিপজল পান ২২৫ ভোট আর নিপুণ ২০৯ ভোট। ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর নিপুণ ডিপজল ও মিশাকে ফুলের মালা পরিয়ে দিয়ে স্বাগত জানান। মিশা ও ডিপজল তাদের গলায় পরিয়ে দেয়া মালা নিপুণকেও পরিয়ে দেন।

তবে ফুলের মালা দিয়ে বরণের ২৫ দিন পর নির্বাচিত কমিটির কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন নিপুণ।

হাইকোর্ট আদেশের পর নিপুণের পক্ষে আইনজীবী সিনিয়র অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক বলেন, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদি নির্বাচনের সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আদালত। এর ফলে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে মনোয়ার হোসেন ডিপজল দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।

তিনি বলেন, ওই নির্বাচনে নানা অনিয়মের অভিযোগ থাকলেও সাধারণ সম্পাদক পদে অভিযোগ ছিল গুরুতর। ওই নির্বাচন নানা অনিয়ম, টাকা ছড়াছড়ি ও ভোটার বের করে দেয়ার অভিযোগ ছিল। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্টদের বরাবর নিপুণ আবেদন করলেও তারা কোনো পদক্ষেপ নেননি। আদালত সাধারণ সম্পাদক পদে অনিয়মের বিষয়টি কন্সিডারেশনে নিয়েছেন। নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত করতে সংশ্লিষ্টদের আদেশ দিয়েছেন।

এখন এ আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে আবেদন করেছেন ডিপজল।

See More

Latest Photos